আর্মড ফোর্সেস মেডিকেল কলেজে পড়ার খরচ

হ্যালো বন্ধুরা, কেমন আছেন সবাই? আশা করি সকলেই খুব ভালো আছেন। আপনারা অনেকেই আর্মড ফোর্সেস মেডিকেল কলেজে পড়ার খরচ সম্পর্কে জানতে চেয়েছেন। আজকে আমি আপনাদেরকে আর্মড ফোর্সেস মেডিকেল কলেজে পড়ার খরচ সম্পর্কে বলবো। তো চলুন শুরু করা যাক।

আজকের বিষয় সমুহ।

আর্মড ফোর্সেস মেডিকেল কলেজে পড়ার খরচ

আর্মড ফোর্সেস মেডিকেল কলেজে (AFMC) পড়ার খরচ মূলত দুই ধরণের:

1. এককালীন খরচ:

  • ভর্তি ফি: ১,০০০ টাকা
  • সিকিউরিটি ডিপোজিট: ৫০,০০০ টাকা (পুনঃপ্রাপ্য)
  • ক্যাডেট ওয়ান টাইম ফি: ৫০,০০০ টাকা

2. নিয়মিত খরচ:

  • টেলিফোন ও ইন্টারনেট চার্জ: ৮০০ টাকা প্রতি মাস
  • মেসিং চার্জ: ৫,৫০০ টাকা প্রতি মাস
  • লন্ড্রি চার্জ: ৫০০ টাকা প্রতি মাস
  • বইপত্র ও স্টেশনারি: ৫,০০০ টাকা প্রতি বছর
  • অন্যান্য খরচ: ৫,০০০ টাকা প্রতি বছর (পোশাক, চলচ্চিত্র, বিনোদন ইত্যাদি)

মোট: প্রতি বছর প্রায় ৮০,০০০ টাকা (খরচ কম-বেশি হতে পারে)

মনে রাখবেন:

  • ক্যাডেটদের পক্ষে বাইরে থেকে খাবার আনা বা বাইরে খাওয়া নিষেধ।
  • ক্যাডেটদের পক্ষে ব্যক্তিগত গাড়ি রাখা নিষেধ।
  • কলেজ কর্তৃপক্ষ ক্যাডেটদের জন্য বিনামূল্যে চিকিৎসা সুবিধা প্রদান করে।

AFMC-তে পড়ার সুবিধা:

  • সম্পূর্ণ বৃত্তি (সকল খরচ সরকার বহন করে)
  • চাকরির নিশ্চয়তা (সফলভাবে স্নাতক হলে বাংলাদেশ সশস্ত্র বাহিনীতে কমিশনপ্রাপ্ত অফিসার হিসেবে যোগদানের সুযোগ)
  • মানসম্পন্ন শিক্ষা ও প্রশিক্ষণ
  • আধুনিক সুযোগ-সুবিধা সমৃদ্ধ кампус
  • অনুপ্রেরণামূলক পরিবেশ

AFMC-তে ভর্তির যোগ্যতা:

  • এসএসসি/এইচএসসি পরীক্ষায় বিজ্ঞান বিভাগে উত্তীর্ণ হতে হবে (কমপক্ষে ৫০% নম্বর সহ)
  • শারীরিক ও মানসিকভাবে সুস্থ হতে হবে
  • বাংলাদেশের নাগরিক হতে হবে
  • সশস্ত্র বাহিনীর কর্মকর্তার সন্তান হতে হবে

AFMC-তে ভর্তির প্রক্রিয়া:

  • প্রতি বছর নভেম্বর মাসে AFMC-তে ভর্তির জন্য আবেদন করা হয়।
  • আবেদনকারীদের একটি লিখিত পরীক্ষা, শারীরিক পরীক্ষা ও মৌখিক পরীক্ষায় অংশগ্রহণ করতে হয়।
  • মেধা ও যোগ্যতার ভিত্তিতে মেধাবী শিক্ষার্থীদের ভর্তি করা হয়।

আর্মড ফোর্সেস মেডিকেল কলেজে ভর্তি

যোগ্যতা:

  • এসএসসি/এইচএসসি পরীক্ষায় বিজ্ঞান বিভাগে উত্তীর্ণ হতে হবে (কমপক্ষে ৫০% নম্বর সহ)
  • শারীরিক ও মানসিকভাবে সুস্থ হতে হবে
  • বাংলাদেশের নাগরিক হতে হবে
  • সশস্ত্র বাহিনীর কর্মকর্তার সন্তান হতে হবে

আবেদন প্রক্রিয়া:

  • প্রতি বছর নভেম্বর মাসে AFMC-তে ভর্তির জন্য আবেদন করা হয়।
  • আবেদনপত্র AFMC-র ওয়েবসাইট থেকে ডাউনলোড করা যাবে।
  • পূরণকৃত আবেদনপত্র নির্ধারিত সময়ের মধ্যে AFMC-র ভর্তি বিভাগে জমা দিতে হবে।
  • আবেদনকারীদের একটি লিখিত পরীক্ষা, শারীরিক পরীক্ষা ও মৌখিক পরীক্ষায় অংশগ্রহণ করতে হবে।
  • মেধা ও যোগ্যতার ভিত্তিতে মেধাবী শিক্ষার্থীদের ভর্তি করা হয়।

পরীক্ষা:

  • লিখিত পরীক্ষা: ইংরেজি, বাংলা, পদার্থবিদ্যা, রসায়ন, জীববিজ্ঞান
  • শারীরিক পরীক্ষা: বুকের এক্স-রে, রক্ত পরীক্ষা, দৃষ্টি পরীক্ষা, শারীরিক ফিটনেস পরীক্ষা
  • মৌখিক পরীক্ষা: ব্যক্তিত্ব ও সাধারণ জ্ঞান পরীক্ষা

ভর্তির খরচ:

  • এককালীন খরচ: ভর্তি ফি, সিকিউরিটি ডিপোজিট, ক্যাডেট ওয়ান টাইম ফি
  • নিয়মিত খরচ: মেসিং চার্জ, লন্ড্রি চার্জ, বইপত্র ও স্টেশনারি, অন্যান্য খরচ

সুবিধা:

  • সম্পূর্ণ বৃত্তি
  • চাকরির নিশ্চয়তা
  • মানসম্পন্ন শিক্ষা ও প্রশিক্ষণ
  • আধুনিক সুযোগ-সুবিধা সমৃদ্ধ кампус
  • অনুপ্রেরণামূলক পরিবেশ

গুরুত্বপূর্ণতথ্য:

  • ক্যাডেটদের পক্ষে বাইরে থেকে খাবার আনা বা বাইরে খাওয়া নিষেধ।
  • ক্যাডেটদের পক্ষে ব্যক্তিগত গাড়ি রাখা নিষেধ।
  • কলেজ কর্তৃপক্ষ ক্যাডেটদের জন্য বিনামূল্যে চিকিৎসা সুবিধা প্রদান করে।

আর্মড ফোর্সেস মেডিকেল কলেজ কি সরকারি

হ্যাঁ, আর্মড ফোর্সেস মেডিকেল কলেজ (AFMC) একটি সরকারি প্রতিষ্ঠান। এটি বাংলাদেশ প্রতিরক্ষা মন্ত্রণালয়ের অধীনে পরিচালিত।

কিছু গুরুত্বপূর্ণ তথ্য:

  • প্রতিষ্ঠাবর্ষ: ১৯৯৭
  • অবস্থান: ঢাকা, বাংলাদেশ
  • ধরণ: সরকারি মেডিকেল কলেজ
  • ডিগ্রি: এমবিবিএস
  • সংযুক্ত প্রতিষ্ঠান: বাংলাদেশ মেডিকেল অ্যান্ড ডেন্টাল কাউন্সিল (BMDC)

AFMC সরকারি মেডিকেল কলেজ হওয়ার কিছু প্রমাণ:

  • প্রতিষ্ঠা: এটি প্রতিরক্ষা মন্ত্রণালয়, বাংলাদেশ সরকার কর্তৃক প্রতিষ্ঠিত ও পরিচালিত।
  • অর্থায়ন: কলেজটি সরকারি তহবিল দ্বারা পরিচালিত হয়।
  • শিক্ষক: শিক্ষকদের নিয়োগ ও বেতন সরকার কর্তৃক নির্ধারিত হয়।
  • পাঠ্যক্রম: শিক্ষা মন্ত্রণালয় কর্তৃক অনুমোদিত পাঠ্যক্রম অনুসরণ করা হয়।
  • ডিগ্রি: সরকার কর্তৃক স্বীকৃত এমবিবিএস ডিগ্রি প্রদান করা হয়।

AFMC-তে ভর্তির জন্য, আবেদনকারীদের অবশ্যই নির্ধারিত যোগ্যতা পূরণ করতে হবে এবং একটি প্রवेशিকা পরীক্ষায় উত্তীর্ণ হতে হবে। ভর্তি হওয়া ক্যাডেটদের পূর্ণ বৃত্তি প্রদান করা হয়, যার অর্থ তাদের লেখাপড়া, খাওয়া-দাওয়া এবং থাকার সমস্ত খরচ সরকার বহন করে। সফলভাবে স্নাতক হওয়ার পর, ক্যাডেটদের বাংলাদেশ সশস্ত্র বাহিনীতে কমিশনপ্রাপ্ত অফিসার হিসেবে যোগদানের সুযোগ দেওয়া হয়।

উপসংহারে, আর্মড ফোর্সেস মেডিকেল কলেজ একটি সম্পূর্ণ সরকারি মেডিকেল কলেজ। এটি উচ্চমানের চিকিৎসা শিক্ষা প্রদান করে এবং তার শিক্ষার্থীদের জন্য চাকরির নিশ্চয়তা প্রদান করে।

আর্মড ফোর্সেস মেডিকেল কলেজের আসন সংখ্যা

আর্মড ফোর্সেস মেডিকেল কলেজে (AFMC) মোট125** টি আসন** রয়েছে।**

  • সাধারণ: 115 টি
  • বিদেশি: 5 থেকে 10 টি (প্রতি বছর সংখ্যা পরিবর্তিত হতে পারে)

কিছু গুরুত্বপূর্ণ তথ্য:

  • প্রতি বছর: AFMC-তে প্রতি বছর নতুন করে শিক্ষার্থী ভর্তি করা হয়।
  • প্রতিযোগিতা: প্রতি বছর হাজার হাজার আবেদনকারীর বিরুদ্ধে প্রতিযোগিতা করে মেধাবী শিক্ষার্থীরা ভর্তির সুযোগ পায়।
  • যোগ্যতা: ভর্তির জন্য নির্ধারিত যোগ্যতা পূরণ করা আবশ্যক।
  • প্রবেশিকা পরীক্ষা: ভর্তির জন্য একটি প্রবেশিকা পরীক্ষায় উত্তীর্ণ হতে হবে।

পরিশেষে

আমি আশা করছি আপনারা আপনাদের আর্মড ফোর্সেস মেডিকেল কলেজে পড়ার খরচ এই প্রশ্নের উওর পেয়েছেন। আরো কিছু জানার থাকলে নিচে কমেন্ট করুন। ধন্যবাদ।

আরো পড়ুনঃ সার্বিয়া ওয়ার্ক পারমিট দেখতে কেমন

Visited 92 times, 1 visit(s) today

Leave a Comment

x