ইন্ডিয়ান টুরিস্ট ভিসা সংক্রান্ত তথ্য ২০২৩

ইন্ডিয়ান টুরিস্ট ভিসা সংক্রান্ত তথ্য সম্পর্কে আমাদের আজকের আর্টিকেলে আলোচনা করা হবে। যদি আপনি ইন্ডিয়ান টুরিস্ট ভিসা সম্পর্কে জানতে চান বা ভ্রমণ করতে চান। অবশ্যই আপনার এই বিষয়গুলি পূর্বে থেকে জানা প্রয়োজন হবে।

আমি আজকে আপনাদের সাথে সম্পূর্ণ গাইডলাইন শেয়ার করব ইন্ডিয়ান টুরিস্ট ভিসা সংক্রান্ত তথ্যগুলি। কি কি প্রয়োজন হবে এবং কতদিনের মধ্যে ইন্ডিয়ান টুরিস্ট ভিসা আপনি পেয়ে যাবেন ইত্যাদি বিষয় আলোচনা করা হবে।

অবশ্যই পুরো আর্টিকেল কি মনোযোগ সহকারে করবেন আশা করি সকল বিষয়বস্তু বুঝতে সহজ হবে।

আজকের বিষয় সমুহ।

ইন্ডিয়ান টুরিস্ট ভিসা সংক্রান্ত তথ্য

Indian tourist visa update  বর্তমান সময়ের ভ্রমণকারী অনেক মানুষ রয়েছে যারা বিভিন্ন দেশের ভ্রমণ করতে অনেক বেশি পছন্দ করেন।

আমাদের পার্শ্ববর্তী দেশ ভারত যেখানে দেখার মত অনেক বিষয় রয়েছে এবং অনেক কিছু রয়েছে। যদি আপনি ইন্ডিয়াতে ভ্রমণ করতে চান, অবশ্যই আপনার ইন্ডিয়ান টুরিস্ট ভিসা প্রয়োজন হবে।

যারা একদম নতুন এর পূর্বে ইন্ডিয়ান টুরিস্ট ভিসা বা ইন্ডিয়াতে যাননি, তাদের জন্য অবশ্যই সম্পূর্ণ গাইডলাইন জানা প্রয়োজন।

কেননা সকল ধাপ সম্পূর্ণ পড়লে আপনি ইন্ডিয়ান টুরিস্ট ভিসা পেয়ে যাবেন এবং পরবর্তী সময়ে আপনি ভারতে প্রবেশ করতে পারবেন ভ্রমণ করার জন্য বা অন্যান্য ক্ষেত্রে।

আরোও পড়ুন: পাসপোর্ট নাম্বার দিয়ে মালয়েশিয়া ভিসা চেক।

আপনি যদি বাংলাদেশ থেকে ইন্ডিয়ান টুরিস্ট ভিসার মাধ্যমে ইন্ডিয়াতে যেতে চান তাহলে অবশ্যই আপনাকে বাংলাদেশী সমস্ত ধাপ সম্পুর্ণ করে পরবর্তী সময়ে ইন্ডিয়ান যে সমস্ত রিকোয়েন্টমেন্ট রয়েছে ভ্রমণকারীদের জন্য তা সম্পুর্ণ করতে হবে।

আমরা এই আর্টিকেল থেকে জানার চেষ্টা করব বাংলাদেশীদের ক্ষেত্রে ইন্ডিয়ান টুরিস্ট ভিসা তৈরি করতে কি কি প্রয়োজন হবে এবং কতদিনের মধ্যে আমরা টুরিস্ট ভিসাটি আমাদের হাতে পেয়ে যাব।

ইন্ডিয়ান টুরিস্ট ভিসা করতে কি কি লাগে?

যদি আপনি একদম নতুন হয়ে থাকেন অর্থাৎ পূর্বে যদি আপনার কোন প্রকার ভিসা না থাকে ইন্ডিয়ান।

এক্ষেত্রে আপনার কিন্তু সমস্ত ধাপ খুব ভালোভাবে অবলম্বন করা সম্পন্ন করতে হবে। এর জন্য আপনার বেশ কিছু ডকুমেন্ট বা কাগজপত্র প্রয়োজন হবে।

এইগুলি ছাড়া আপনি কিন্তু কোনোভাবেই ইন্ডিয়াতে প্রবেশ করতে পারবে না এবং ইন্ডিয়ান টুরিস্ট ভিসা যদি আপনি ব্যবসায়ী কাজে যান বা কোন মেডিকেল কাজ বা সাধারণ ভ্রমনে জান তাহলেও কিন্তু এই সমস্ত ডকুমেন্ট অবশ্যই প্রয়োজন হবে।

যে কোন ক্ষেত্রে আপনি ভারতে যান না কেন আপনার ডকুমেন্টে যদি সমস্যা থাকে। তাহলে কিন্তু প্রসেসিংয়ের সময় আপনার আবেদনটি বরখাস্ত করা হতে পারে।

তাই যে সমস্ত ডকুমেন্টের কথা আর্টিকেলে উল্লেখ করা হবে, সেই সমস্ত অরিজিনাল ডকুমেন্ট ব্যবহার করবেন ইন্ডিয়ান টুরিস্ট ভিসা তৈরি করার জন্য।

ইন্ডিয়ান টুরিস্ট ভিসার জন্য প্রয়োজনীয় কাগজপত্র

ইন্ডিয়ান টুরিস্ট ভিসার জন্য ছবি: সর্বপ্রথম প্রয়োজন হবে ইন্ডিয়ান টুরিস্ট ভিসার জন্য ২x২ সাইজের ছবি (350*350 recommend) অবশ্যই ছবির ব্যাকগ্রাউন্ড সাদা হতে হবে।

ইন্ডিয়ান টুরিস্ট ভিসার জন্য জাতীয় পরিচয় পত্র: এরপর প্রয়োজন হবে বাংলাদেশ তার অনুমোদিত জাতীয় পরিচয় পত্র ফটোকপি (ভোটার আইডি কার্ড না থাকলে জন্ম নিবন্ধন সনদ ব্যবহার করতে পারবেন)

ইন্ডিয়ান টুরিস্ট ভিসার জন্য স্থানীয় ঠিকানা যাচাই: ইন্ডিয়ান টুরিস্ট ভিসা এর জন্য অবশ্যই আপনার স্থানীয় ঠিকানা যাচাই করতে হবে। যা আপনি বিদ্যুৎ, বিল গ্যাস বিল, পানি বিল ইত্যাদির মধ্যে যেকোনো একটি ব্যবহার করতে পারবেন লাস্ট ৬ মাসের।

ইন্ডিয়ান টুরিস্ট ভিসার জন্য ব্যাংক স্টেটমেন্ট: আমাদের ব্যাংক অ্যাকাউন্টের স্টেটমেন্ট প্রয়োজন হবে। অথবা ইন্টারন্যাশনাল ক্রেডিট কার্ড যদি আপনার থাকে।

সেখানে আপনার সর্বনিম্ন ব্যালেন্স ১৫০ ডলার এবং বাংলাদেশি টাকা সর্বনিম্ন ২০ হাজার টাকা সমপরিমাণ একাউন্ট ব্যালেন্স থাকতে হবে।

ইন্ডিয়ান টুরিস্ট ভিসার জন্য পেশা যাচাই: এরপর হল আপনি কোন পেশায় অবস্থান করতেছেন যেমন স্টুডেন্ট, ব্যবসিক, এর জন্য আপনাকে ট্রেড লাইসেন্স অথবা সরকারি NOC সার্টিফিকেট প্রদান করতে হবে।

ইন্ডিয়ান টুরিস্ট ভিসার জন্য পূর্বের পাসপোর্ট: অবশ্যই একটি পাসওয়ার্ড থাকতে হবে যার মেয়াদ সর্বনিম্ন ৬ মাস। অর্থাৎ আপনার পাসপোর্ট এর মেয়াদ যদি ছয় মাস থাকে তাহলে আপনি ব্যবহার করতে পারবেন।

আর যদি এর থেকে কম থাকে তাহলে এটি ব্যবহার করা যাবে না। নবায়ন করে পরবর্তী সময় ব্যবহার করতে পারবেন।

ইন্ডিয়ান টুরিস্ট ভিসার জন্য আবেদন ফরম: সর্বশেষ আপনি যে ইন্ডিয়ান টুরিস্ট ভিসার জন্য আবেদন করবেন। তার ফর্মটির প্রয়োজন হবে অনলাইন ফর্ম এটি কিন্তু আপনাকে ইন্টারনেটের মাধ্যমে আবেদন করতে হবে ওয়েবসাইট হতে।

ইন্ডিয়ান টুরিস্ট ভিসা খরচ কত টাকা?

যদি আপনি শুধুমাত্র ভিসা আবেদন করতে চান এক্ষেত্রে আপনার খুব বেশি থাকা প্রয়োজন হবেনা কিন্তু অন্যান্য ক্ষেত্রে আপনার টাকা প্রয়োজন হবে।

ইন্ডিয়ান ভিসা আবেদন করার জন্য আপনাকে https://www.ivacbd.com/ এই ওয়েবসাইটে ৮০০ টাকার মতো পেমেন্ট পরিশোধ করতে হবে।

যা আপনি বিকাশ ও অন্যান্য মোবাইল ব্যাংকিং অথবা ব্যাংকিংয়ের মাধ্যমে পরিশোধ করতে পারবেন।

ইন্ডিয়ান ভ্রমণের জন্য পাসপোর্ট যদি তৈরি করতে চান। এক্ষেত্রে আপনার প্রয়োজন হবে সাধারণভাবে ৩০০০ টাকা এবং এখানে আরও ভ্যাট রয়েছে ৪৫০ টাকা

যদি আপনি আরো দ্রুত সময়ের মধ্যে আপনার ভিসাটি পেতে চান তাহলে আরও বেশি টাকা খরচ হতে পারে।

আর টুরিস্ট ভিসা আবেদনের জন্য ৬০০ থেকে ৮০০ টাকা পর্যন্ত লাগতে পারে। জমাকৃত টাকার ফটোকপি অবশ্যই সংরক্ষণ করবেন যা পরবর্তী সময় বর্ডারে প্রয়োজন হতে পারে।

ইন্ডিয়ান টুরিস্ট ভিসা পেতে কতদিন লাগে?

সাধারণত খুব বেশি সময় লাগার কথা না তবে অনেক ক্ষেত্রে দেখা যায় ১৫ থেকে ২০ কর্মদিবস পর্যন্ত সময় লেগে যায় ইন্ডিয়ান টুরিস্ট ভিসা হাতে পেতে। তবে এর থেকে কম সময় লাগতে পারে যদি আপনার কাগজপত্র ঠিকঠাকভাবে থাকে।

অবশ্যই চেষ্টা করবেন সঠিকভাবে ডকুমেন্টগুলি বা কাগজপত্র গুলি সাবমিট করেন তাহলে দ্রুত সময়ের মধ্যে আপনার বিষয়টি সম্পূর্ণ হয়ে যাবে।

আর যদি কোন প্রকার ভুল ত্রুটি থাকে বা ফেক কিছু প্রদান করেন। এক্ষেত্রে আপনার বিষয়টি সাথে সাথে বাতিল করা হবে।

পাসপোর্ট এবং ভিসা যদি দুটোই আপনি একসঙ্গে করেন। এক্ষেত্রে মোটামুটি ২০ থেকে ২৫ দিন সময় আপনার প্রয়োজন হবে।

এর মধ্যে দুটি সম্পন্ন করতে পারবেন কিভাবে পাসপোর্ট তৈরি করতে হয় বা পাসপোর্ট সম্পর্কিত আমাদের ওয়েবসাইটে করবে আর্টিকেল প্রকাশ করা হয়েছে সেখান থেকে দেখে নিতে পারেন।

ইন্ডিয়ান টুরিস্ট ভিসার মেয়াদ কতদিন?

সর্বশেষ আমরা জানার চেষ্টা করব ইন্ডিয়ান টুরিস্ট ভিসা মেয়াদ কতদিন থাকবে? অর্থাৎ আপনি যদি একবার এই বিষয়টি করে ইন্ডিয়াতে প্রবেশ করেন।

তাহলে তার মেয়াদ কতদিন থাকবে তা আপনাকে কিন্তু পূর্বে প্রসেসিং করে নিতে হবে।

সাধারণত এককভাবে যদি আপনি ভ্রমণ করতে চান ইন্ডিয়াতে অথবা আপনার পরিবার নিয়ে একই নিয়ম নীতি অবলম্বন করতে হবে।

আপনি ইন্ডিয়ান টুরিস্ট ভিসা তিন মাস ছয় মাস অথবা এক বছর জন্য নিতে পারেন। তবে ভারত সরকার নিয়ে অনুযায়ী ১৮০ দিনের বেশি অবস্থান করা যাবে না ।

আপনাকে পুনরায় নতুন করে সবকিছু করতে হবে। যদি আপনি এর থেকে বেশিদিন থাকতে চান বা ভ্রমণ করতে চান ইন্ডিয়াতে। তাদের দেশের সরকার এই নিয়মটি চালু করেছে বাইরের পর্যটকদের জন্য।

সর্বশেষ কথা

আশা করি বুঝতে পেরেছেন ইন্ডিয়ান টুরিস্ট ভিসা সংক্রান্ত তথ্যগুলি আপনাদের সাথে শেয়ার করলাম। যদি আপনার কোন কিছু বুঝতে সমস্যা হয় বা আরো কোন কিছু সম্পর্কে আপনি জানতে চান।

তাহলে অবশ্যই কমেন্টের মাধ্যমে আপনার মতামত আমাদের সাথে শেয়ার করবেন। আমরা চেষ্টা করব আপনার সমস্যা দ্রুত সমাধান শেয়ার করার জন্য।

Leave a Comment

x