এসি কেনার আগে এই গুরুত্বপূর্ণ বিষয়গুলো জেনে নিন

হ্যালো বন্ধুরা, কেমন আছেন সবাই? আশা করি সকলেই খুব ভালো আছেন। আপনারা অনেকেই এসি কেনার আগে এই গুরুত্বপূর্ণ বিষয়গুলো সম্পর্কে জানতে চেয়েছেন। আজকে আমি আপনাদেরকে এসি কেনার আগে এই গুরুত্বপূর্ণ বিষয়গুলো সম্পর্কে বলবো। তো চলুন শুরু করা যাক।

আজকের বিষয় সমুহ।

এসি কেনার আগে জেনে নিন গুরুত্বপূর্ণ বিষয়গুলো

১. কক্ষের আকার: এসি কেনার আগে সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ বিষয় হল আপনার কক্ষের আকার। কক্ষের আকার অনুযায়ী সঠিক ক্ষমতার এসি না কিনলে আপনি ঠান্ডা পাবেন না এবং বিদ্যুতের অপচয়ও হবে।

২. ধরণ: বাজারে বিভিন্ন ধরণের এসি পাওয়া যায়, যেমন উইন্ডো, স্প্লিট, ইনভার্টার ইত্যাদি। আপনার চাহিদা ও বাজেট অনুযায়ী সঠিক ধরণের এসি নির্বাচন করুন।

৩. বিদ্যুৎ খরচ: এসির বিদ্যুৎ খরচ একটি গুরুত্বপূর্ণ বিষয়। A++ এবং A+ রেটিং এর এসিগুলো বিদ্যুৎ সাশ্রয়ী।

৪. ব্র্যান্ড ও ওয়ারেন্টি: বাজারে বিভিন্ন ব্র্যান্ডের এসি পাওয়া যায়। একটি ভালো ব্র্যান্ডের এসি কিনুন এবং যার দীর্ঘমেয়াদী ওয়ারেন্টি আছে।

৫. দাম: বাজারে বিভিন্ন দামের এসি পাওয়া যায়। আপনার বাজেট অনুযায়ী এসি কিনুন।

৬. অতিরিক্ত বৈশিষ্ট্য: কিছু এসিতে অতিরিক্ত বৈশিষ্ট্য থাকে, যেমন Wi-Fi, এয়ার পিউরিফায়ার, ইত্যাদি। আপনার চাহিদা অনুযায়ী এসি কিনুন।

কিছু টিপস:

  • এসি কেনার আগে বিভিন্ন ব্র্যান্ড ও দাম সম্পর্কে খোঁজ নিন।
  • বিক্রেতার কাছ থেকে বিস্তারিত জেনে নিন।
  • এসির ওয়ারেন্টি ও গ্যারান্টি সম্পর্কে জেনে নিন।
  • নিয়মিত এসির মেইন্টেন্যান্স করুন।

এই তথ্যগুলো জেনে নিলে আপনি সঠিক এসি কিনতে পারবেন এবং দীর্ঘদিন ধরে ঠান্ডা উপভোগ করতে পারবেন।

বাংলাদেশের সবচেয়ে ভালো এসি কোনটি

জনপ্রিয় ব্র্যান্ড:

  • গ্রী: গ্রী বিদ্যুৎ সাশ্রয়ী এবং টেকসই এসির জন্য পরিচিত।
    Image of Gree AC Bangladesh
  • মিডিয়া: মিডিয়া উন্নত প্রযুক্তি এবং বৈশিষ্ট্য সহ বিভিন্ন ধরণের এসি অফার করে।
    Image of Media AC Bangladesh
  • শার্প: শার্প তাদের উচ্চমানের এবং দীর্ঘস্থায়ী এসির জন্য পরিচিত।
    Image of Sharp AC Bangladesh
  • ইলেকট্রোলাক্স: ইলেকট্রোলাক্স বিভিন্ন ধরণের এসি অফার করে যা বিভিন্ন বাজেটের জন্য উপযুক্ত।
    Image of Electrolux AC Bangladesh
  • বসুন্ধরা: বসুন্ধরা একটি জনপ্রিয় বাংলাদেশী ব্র্যান্ড যা সাশ্রয়ী মূল্যের এসি অফার করে।
    Image of BSHUNDARA AC Bangladesh

কিছু ভালো রেটেড মডেল:

  • গ্রী G10 Ultima Inverter AC: এটি একটি বিদ্যুৎ সাশ্রয়ী ইনভার্টার এসি যা দ্রুত ঠান্ডা করে এবং টেকসই।
  • মিডিয়া Midea Infinity Inverter AC: এটি আরেকটি জনপ্রিয় ইনভার্টার এসি যা উন্নত বৈশিষ্ট্য সহ আসে।
  • শার্প AX-APEX16U-M: এটি একটি উচ্চমানের এসি যা দীর্ঘস্থায়ী এবং দক্ষ।
  • ইলেকট্রোলাক্স EACS-12ZCPX: এটি একটি সাশ্রয়ী মূল্যের এসি যা ভালো পারফরম্যান্স অফার করে।
  • বসুন্ধরা BS-Split12I: এটি একটি জনপ্রিয় বাংলাদেশী এসি যা সাশ্রয়ী মূল্যের এবং টেকসই।

এসি কেনার সময় বিবেচনা করার কিছু বিষয়:

  • কক্ষের আকার: আপনার কক্ষের আকারের জন্য সঠিক ক্ষমতার এসি নির্বাচন করুন।
  • ধরণ: আপনার চাহিদা ও বাজেট অনুযায়ী উইন্ডো, স্প্লিট, ইনভার্টার ইত্যাদির মধ্যে একটি ধরণ নির্বাচন করুন।
  • বিদ্যুৎ খরচ: A++ এবং A+ রেটিং এর এসিগুলো বিদ্যুৎ সাশ্রয়ী।
  • ব্র্যান্ড ও ওয়ারেন্টি: একটি ভালো ব্র্যান্ডের এসি কিনুন এবং যার দীর্ঘমেয়াদী ওয়ারেন্টি আছে।
  • অতিরিক্ত বৈশিষ্ট্য: কিছু এসিতে Wi-Fi, এয়ার পিউরিফায়ার, ইত্যাদি অতিরিক্ত বৈশিষ্ট্য থাকে।

বাসার জন্য কোন এসি ভালো

আপনার বাড়ির জন্য কোন এসি ভালো তা নির্ভর করে আপনার নির্দিষ্ট চাহিদা এবং বাজেটের উপর। বিবেচনা করার জন্য এখানে কিছু বিষয় রয়েছে:

  • কক্ষের আকার: আপনার কক্ষের জন্য সঠিক আকারের এসি নির্বাচন করা গুরুত্বপূর্ণ। একটি এসি যা খুব ছোট তা কক্ষটিকে ঠান্ডা করতে পারবে না, এবং একটি এসি যা খুব বড় তা অপ্রয়োজনীয়ভাবে শক্তি ব্যবহার করবে। আপনার কক্ষের আকারের জন্য সঠিক এসির আকার নির্ধারণ করতে, আপনি একটি এসি সাইজ ক্যালকুলেটর ব্যবহার করতে পারেন।
    Image of এসি সাইজ ক্যালকুলেটর
  • ধরণ: বাজারে বিভিন্ন ধরণের এসি রয়েছে, যার মধ্যে রয়েছে উইন্ডো, স্প্লিট এবং পোর্টেবল। উইন্ডো এসিগুলি ইনস্টল করা সবচেয়ে সহজ, তবে সেগুলি সবচেয়ে কম দক্ষ এবং সবচেয়ে বেশি শব্দ করে। স্প্লিট এসিগুলি আরও দক্ষ এবং কম শব্দ করে, তবে সেগুলি ইনস্টল করা বেশি ব্যয়বহুল। পোর্টেবল এসিগুলি সহজেই একটি ঘর থেকে অন্য ঘরে সরানো যেতে পারে, তবে সেগুলি সবচেয়ে কম দক্ষ এবং সবচেয়ে বেশি শব্দ করে।
    Image of পোর্টেবল এসি
  • বিদ্যুৎ দক্ষতা: এসির বিদ্যুৎ দক্ষতা একটি গুরুত্বপূর্ণ বিবেচনা, বিশেষ করে আপনি যদি এটি ব্যবহার করেন নিয়মিত। উচ্চ-দক্ষতা সহ এসিগুলি কম শক্তি ব্যবহার করে, যার অর্থ আপনার বিদ্যুৎ বিল কম হবে। এসির বিদ্যুৎ দক্ষতা SEER (সিজোনাল এনার্জি এফিশিয়েন্স রেশিও) রেটিং দ্বারা পরিমাপ করা হয়। উচ্চতর SEER রেটিং, আরও দক্ষ এসি।
  • বৈশিষ্ট্য: কিছু এসিতে বিভিন্ন বৈশিষ্ট্য রয়েছে যা আপনার জন্য গুরুত্বপূর্ণ হতে পারে, যেমন একটি থার্মোস্ট্যাট, একটি রিমোট কন্ট্রোল বা একটি এয়ার পিউরিফায়ার।
  • ব্যয়: এসি দামে ব্যাপকভাবে পরিবর্তিত হতে পারে। আপনার বাজেটের জন্য সঠিক এসি খুঁজে পাওয়া গুরুত্বপূর্ণ।

এখানে কিছু নির্দিষ্ট এসি রয়েছে যা বাড়ির জন্য ভাল বিকল্প:

  • গ্রী G10 আল্টিমা ইনভার্টার এসি: এটি একটি উচ্চ-দক্ষতা সহ একটি ইনভার্টার এসি SEER রেটিং 26.0। এটিতে একটি থার্মোস্ট্যাট, একটি রিমোট কন্ট্রোল এবং একটি এয়ার পিউরিফায়ার রয়েছে।
    Image of Gree G10 Ultima Inverter AC
    ভালো এসি চেনার উপায়

    আপনার চাহিদা নির্ধারণ করুন:

    • কক্ষের আকার: এসির ক্ষমতা নির্ধারণের জন্য এটি গুরুত্বপূর্ণ।
    • ব্যবহারের পরিমাণ: নিয়মিত ব্যবহারের জন্য উচ্চ দক্ষতাসম্পন্ন এসি প্রয়োজন।
    • বাজেট: এসির দাম ব্যাপকভাবে পরিবর্তিত হয়।
    • অতিরিক্ত বৈশিষ্ট্য: থার্মোস্ট্যাট, রিমোট, এয়ার পিউরিফায়ার ইত্যাদি।

    কিছু টিপস:

    • বিভিন্ন ব্র্যান্ড ও দাম সম্পর্কে খোঁজ নিন।
    • বিক্রেতার কাছ থেকে বিস্তারিত জেনে নিন।
    • এসির ওয়ারেন্টি ও গ্যারান্টি সম্পর্কে জেনে নিন।
    • নিয়মিত এসির মেইন্টেন্যান্স করুন।

    কিছু জনপ্রিয় ব্র্যান্ড:

    • গ্রী
    • মিডিয়া
    • শার্প
    • ইলেকট্রোলাক্স
    • বসুন্ধরা

    কিছু ভালো রেটেড মডেল:

    • গ্রী G10 Ultima Inverter AC
    • মিডিয়া Infinity Inverter AC
    • শার্প AX-APEX16U-M
    • ইলেকট্রোলাক্স EACS-12ZCPX
    • বসুন্ধরা BS-Split12I

    কিস্তিতে এসি কেনার উপায়

    বাংলাদেশে কিস্তিতে এসি কেনার বেশ কয়েকটি উপায় রয়েছে:

    ১. বড় ইলেকট্রনিক দোকান:

    • ওয়ালটন, রিপন, বনশাল, ইলেকট্রোহাট ইত্যাদি বড় ইলেকট্রনিক দোকানগুলো বিভিন্ন ব্র্যান্ডের এসি কিস্তিতে বিক্রি করে।
    • এসি কেনার সময় তাদের সাথে কথা বলুন এবং কিস্তির সুবিধা সম্পর্কে জেনে নিন।
    • সাধারণত, তারা কিছু ডাউন পেমেন্ট এবং কয়েক মাসের কিস্তি চাইবে।
    • আপনার ক্রেডিট কার্ড থাকলে, আপনি ০% সুদের কিস্তিতেও এসি কিনতে পারেন।

    ২. অনলাইন মার্কেটপ্লেস:

    • আপনি যদি অনলাইনে কেনাকাটা করতে পছন্দ করেন, তাহলে আপনি আমাজন, ওয়ালটন ই-কমার্স, চালডাল, বাজার ইত্যাদি অনলাইন মার্কেটপ্লেসে কিস্তিতে এসি কিনতে পারেন।
    • এই প্ল্যাটফর্মগুলো বিভিন্ন বিক্রেতার এসি অফার করে এবং আপনি তুলনা করে সেরা ডিল পেতে পারেন।
    • কিস্তির সুবিধা সম্পর্কে জানতে বিক্রেতার সাথে যোগাযোগ করুন।

    ৩. ব্যাংক:

    • **কিছু ব্যাংক গ্রাহকদের জন্য বিশেষ এসি কিস্তি প্রোগ্রাম অফার করে।
    • আপনার ব্যাংকে যোগাযোগ করে জেনে নিন যে তারা এমন কোন প্রোগ্রাম অফার করে কিনা।
    • সাধারণত, এই প্রোগ্রামগুলোতে আকর্ষণীয় সুদের হার এবং দীর্ঘমেয়াদী কিস্তির সুবিধা থাকে।

    ৪. মোবাইল অপারেটর:

    • কিছু মোবাইল অপারেটর তাদের গ্রাহকদের জন্য কিস্তিতে এসি কেনার সুবিধা অফার করে।
    • আপনার মোবাইল অপারেটরের সাথে যোগাযোগ করে জেনে নিন যে তারা এমন কোন প্রোগ্রাম অফার করে কিনা।
    • এই প্রোগ্রামগুলোতে সাধারণত ডাউন পেমেন্টের প্রয়োজন হয় না এবং কিস্তির মেয়াদও কম হয়।

    কিস্তিতে এসি কেনার সময় কিছু বিষয় মনে রাখতে হবে:

    • কিস্তির সুদের হার: বিভিন্ন বিক্রেতা, ব্যাংক এবং মোবাইল অপারেটরের বিভিন্ন সুদের হার থাকে। সেরা ডিল পেতে তুলনা করুন।
    • ডাউন পেমেন্ট: কিছু ক্ষেত্রে, ডাউন পেমেন্টের প্রয়োজন হতে পারে।
    • কিস্তির মেয়াদ: কিস্তি কত মাস ধরে চলবে তা নিশ্চিত করুন।
    • অতিরিক্ত চার্জ: কিছু ক্ষেত্রে, প্রক্রিয়াকরণ ফি বা অন্যান্য অতিরিক্ত চার্জ থাকতে পারে।
    • ওয়ারেন্টি: এসির ওয়ারেন্টি সম্পর্কে জেনে নিন।

    পরিশেষে

    আমি আশা করছি আপনারা আপনাদের এসি কেনার আগে এই গুরুত্বপূর্ণ বিষয়গুলো এই প্রশ্নের উওর পেয়েছেন। আরো কিছু জানার থাকলে নিচে কমেন্ট করুন। ধন্যবাদ।

    আরো পড়ুনঃ বিকাশে টাকা পাঠানোর নিয়ম

Visited 188 times, 3 visit(s) today

Leave a Comment

x