জন্ম তথ্য সংশোধনের জন্য আবেদন | অনলাইনে কিভাবে জন্ম সনদ সংশোধন করবো।

আস্সালামুআলাইকুম কেমন আছেন সবাই আশা করি সকলেই ভালো রয়েছেন, আজকে আপনাদের সামনে আরো একটি নতুন আর্টিকেল নিয়ে হাজির হলাম ,আজকে আমরা আলোচনা করবো, জন্ম তথ্য সংশোধনের জন্য আবেদন বিষয় নিয়ে।

কিভাবে আপনি ঘরে বসে জন্ম নিবন্ধন সনদ সংশোধন করবেন। এবং কি কি কাগজপত্রের প্রয়োজন হবে অনলাইন থেকে জন্ম তথ্য সংশোধন করার জন্য সকল বিষয় জানতে পারবেন।

জন্ম তথ্য সংশোধনের জন্য আবেদন।

বর্তমান সময়ে আপনি ঘরে বসে জন্ম তথ্য সংশোধনের জন্য আবেদন করতে পারবেন এবং সমস্ত কাজ আপনি অনলাইন থেকে করতে পারবেন। অনেকের জন্ম নিবন্ধন অনেক তথ্য ভুল হয়েছে সেগুলো চাইলে আপনি এখন ঘরে বসেই সমাধান বা সংশোধন করে নিতে পারবেন।

এখানে কিভাবে আপনি জন্ম তথ্য সংশোধন করবেন এবং কিভাবে জন্ম তথ্য সংশোধনের জন্য আবেদন করবেন সেই বিষয়গুলি আপনাদের সাথে শেয়ার করার চেষ্টা করব আশা করি আপনার যদি এরকম কোন সমস্যা থাকে তাহলে আপনি এই আর্টিকেল থেকে দেখে পরবর্তী সময়ে নিজেই নিজের জন্ম সনদ সংশোধন করে নিতে পারবেন।

আরোও পড়ুন: How To check Birth Certificate online

যারা পূর্বে জন্ম সনদ তৈরি করেছে তাদের অনেক ক্ষেত্রে দেখা যায় অনেক ধরনের ভুল রয়েছে তার মধ্যে সেরা যে ভুলগুলি রয়েছে পিতা মাতার নাম এবং নিজের নামের কিছু ভুল লক্ষ্য করা যায়।

এই ছোট ছোট ভুলগুলোর কারণে আপনি হয়তো বা ভবিষ্যতে ভালো কোন পর্যায়ে যেতে পারবেন না। কেননা সরকারি বা বেসরকারি ভালো কোন পর্যায়ে কোন চাকরি করার জন্য অবশ্যই আপনার ফ্রেশ এবং ভেজালমুক্ত কাগজপত্র প্রয়োজন হবে।

এক্ষেত্রে আপনার জন্ম নিবন্ধন সনদ যদি ভুল ত্রুটি থাকে তাহলে হয়তো বা আপনার সেই চাকরিটি বা সেই কাজে অনেক বেশি কঠিন হয়ে যাবে। তাই আপনার জন্ম সনদে কোন ভুল থাকলে সেটি দ্রুত সময়ের মধ্যে সংশোধন করে নেওয়া উত্তম।

জন্ম তথ্য সংশোধন করতে কি কি লাগে।

জন্ম তথ্য সংশোধন করতে খুব বেশি ডকুমেন্ট বা কাগজপত্র আমাদের প্রয়োজন নেই তবে আপনার পিতা-মাতার জন্ম সনদ বা ভোটার আইডি কার্ড প্রয়োজন হবে আপনার জন্ম তথ্য সংশোধন করতে।

এবং নিয়ম অনুযায়ী আপনাকে সমস্ত ধাপ শেষ করলে পুনরায় নতুন জন্ম সনদটি পেয়ে যাবেন। সেটি খুব অল্প সময়ের মধ্যে করা সম্ভব কেননা যদি আপনি সঠিক তথ্য দাখিল করতে পারেন তাহলে খুব বেশি সময় নেবে না আপনার পক্ষে বলে মঞ্জিল হতে|

এক্ষেত্রে যখন আপনি জন্ম তথ্য সংশোধনের জন্য আবেদন করবেন সেই সময় অবশ্যই আপনার পিতা-মাতার জন্ম নিবন্ধন সনদ অথবা ভোটার আইডি কার্ড সংরক্ষণ করার চেষ্টা করবেন।

নিচে থেকে আমরা জন্ম নিবন্ধন তথ্য সংশোধনের নিয়ম সম্পর্কে জেনে নেব এবং কিভাবে আপনি জন্ম নিবন্ধন তথ্য সংশোধনের জন্য আবেদন করবেন সেই বিষয়গুলি বিস্তারিত আলোচনা করব।

জন্ম তথ্য সংশোধনের জন্য আবেদন ফরম।

জন্ম তথ্য সংশোধনের জন্য আবেদন ফরম এর পূর্বে অবশ্যই আপনি একটি নোটিশ বা বিজ্ঞপ্তি ভালো করে লক্ষ্য করে নেবেন কেননা তাদের অফিসিয়াল ওয়েবসাইটে এই নোটিশটি দেখানো হয়েছে।

এখানে মূলত বোঝানো হয়েছে আপনি যদি আপনার জন্ম নিবন্ধন সনদ সংশোধনের জন্য আবেদন করেন এক্ষেত্রে আপনার কি কি প্রয়োজন হবে। এবং গুরুত্বপূর্ণ ডকুমেন্ট ছাড়া আপনি কিন্তু কোনভাবেই জন্ম সনদ সংশোধন করতে পারবেন না।

প্রথমে আমাদেরকে জন্ম তথ্য সংশোধনের জন্য প্রবেশ করতে হবে অফিসিয়াল ওয়েবসাইটে। https://bdris.gov.bd/br/correction এখানে প্রবেশ করার পর আপনি পুনরায় নোটিশ বা বিজ্ঞপ্তি ভালো করে পড়ে নিবেন যেন কোন কিছু পরবর্তী সময় আমাদের সমস্যা না হয়।

জন্ম নিবন্ধন সনদ সংশোধনের ফরম পাওয়ার জন্য প্রথমে নিচে আপনার জন্ম নিবন্ধনটি সাবমিট করতে হবে। এর জন্য আপনার জন্ম সনদ নাম্বার এবং জন্ম দিন , তারিখ , বছর সঠিকভাবে সাবমিট করবেন।

এখানে আপনি জন্ম নিবন্ধন সংশোধন করার জন্য ভিডিওটি দেখে নিতে পারেন কিভাবে করতে হবে এই কাজগুলি জানিয়ে বিস্তারিত উপরে আমি একটি ভিডিও দিয়ে দিচ্ছি আশা করি এখান থেকে সহজে বুঝতে পারবেন জন্ম তথ্য সংশোধন করা সম্পর্কে।

জন্ম তথ্য সংশোধনের জন্য আবেদন প্রিন্ট।

জন্ম তথ্য সংশোধনের জন্য আবেদন পরবর্তী সময়ে আপনি নিতে পারবেন এবং সেটি কিন্তু অবশ্যই আপনাকে জন্ম তথ্য সংশোধনের আবেদন জমা বা পরিশোধ করার পরবর্তী সময় দেওয়া হবে।

যখন আপনি সমস্ত কাজ সম্পন্ন করবেন এবং সকল প্রকার ডকুমেন্ট সাবমিট করবেন তার পরবর্তী সময়ে আপনাকে তারা পেমেন্ট করতে বলবে। অর্থাৎ সকল প্রকার কাজ শেষ হওয়ার পর আপনি জন্ম সনদ সংশোধনের আবেদন প্রিন্ট পেয়ে যাবেন।

তবে এর আগে অবশ্যই আপনাকে মনে রাখতে হবে আপনি সর্বোচ্চ একটি জন্ম নিবন্ধন চারবার সংশোধন করতে পারবেন এর চেয়ে বেশি কোনভাবেই কিন্তু জন্ম নিবন্ধন সনদ সংশোধন করা সম্ভব হবে না আপনার জন্য।

অবশ্যই সংশোধন করার ক্ষেত্রে উপরের ভিডিওটি ভালোভাবে দেখে এবং সঠিক তথ্য দিয়ে ঘরগুলো পূরণ করবেন এবং পরবর্তী সময়ে যেভাবে আপনাকে ভিডিওতে বলা হবে সেভাবে কাজ গুলি করবেন ও তাদের বিল পরিশোধ করে দিবেন।

জন্ম তথ্য সংশোধনের জন্য আবেদন ফি।

এখন কথা বলা যাক জন্ম তথ্য সংশোধনের জন্য আবেদন ফি কত টাকা। এটি নির্দিষ্ট ভাবে বলা হয়নি কেননা এখানে ধাপ অনুযায়ী আপনার থেকে ফি কেটে নেবে।

অর্থাৎ আপনি যে বিষয়টি সংশোধন করতে চাচ্ছেন সেই বিষয়টির উপর নির্ভর করবে এখানে কত টাকা আপনাকে প্রদান করতে হবে। প্রতিটি কাজের জন্য আলাদা আলাদা ভাবে আপনাকে পেমেন্ট করতে হবে যেমন আপনি যদি পিতা-মাতার নাম সংশোধন করতে চান এক্ষেত্রে আপনাকে ৫০ টাকা ফি প্রদান করতে হবে।

এবং আপনি যদি শুধুমাত্র জন্ম তারিখ সংশোধন করতে চান এক্ষেত্রে আপনার প্রয়োজন হবে একশত টাকা। এইভাবে প্রতিটি ধাপের জন্য আলাদা আলাদা ফি প্রদান করতে হবে। জন্ম নিবন্ধনের খুব বেশি ভুল নেই তবে সবচেয়ে বেশি ভুলই দেখা যায় সেটি হল পিতা-মাতার নাম যা আপনার জন্ম নিবন্ধন এবং আপনার পিতামাতার ভোটার আইডি কার্ডের সঙ্গে মিলে না।

আশা করি আপনার ১০০ থেকে ১৫০ টাকা এর বেশি খরচ হবে না যদি আপনি অনলাইন থেকে এই কাজগুলি করে নেন আর যদি আপনি অনলাইন ব্যতীত এই কাজগুলি করার চেষ্টা করেন তাহলে আমার মনে হয় অনেক বেশি টাকা খরচ পড়ে যাবে।

চেষ্টা করবেন অনলাইন থেকে করার এবং আপনি যদি না বুঝেন বিষয়গুলি তাহলে কোন একজন ভালো শিক্ষিত মানুষের মাধ্যমে এই কাজগুলি করে নেওয়ার চেষ্টা করবেন।

আশা করি আর্টিকেলটি বুঝতে পেরেছেন যদি কোন কিছু বুঝতে সমস্যা হয় তাহলে অবশ্যই কমেন্টের মাধ্যমে আপনার সাথে আমাদের সাথে শেয়ার করবেন। এবং আমরা চেষ্টা করব পরবর্তী সময়ে আপনার সমস্যার সঠিক সমাধান শেয়ার করার জন্য।

Visited 19 times, 1 visit(s) today

Leave a Comment