জন্ম নিবন্ধন বাংলা থেকে ইংরেজী করার নিয়ম।

আসসালামু আলাইকুম কেমন আছেন সবাই আশা করি সকলে ভালো আছেন আপনাদের সামনে আরো একটি নতুন আর্টিকেল নিয়ে হাজির হলাম আজকে আমরা দেখবো জন্ম নিবন্ধন বাংলা থেকে ইংরেজি করার নিয়ম।

অর্থাৎ আপনার জন্ম নিবন্ধন যদি শুধুমাত্র বাংলায় হয়ে থাকে এক্ষেত্রে আপনি সেখানে ইংরেজি সংযোজন করতে পারবেন। এবং আপনার কঠিন কাজ গুলোকে আরো সহজ বাড়িয়ে নিতে পারবেন।

জন্ম নিবন্ধন বাংলা থেকে ইংরেজী করার নিয়ম।

বেশিরভাগ জন্ম সনদ দেখা যায় শুধুমাত্র বাংলায় রয়েছে সেখানে কোন প্রকার ইংরেজি তথ্য নেই যার কারণে অনেক বড় বড় কাজে আমাদের সমস্যার সম্মুখীন হতে হয়। আপনি চাইলে আপনার জন্ম সনদে বাংলার পাশাপাশি ইংরেজি অনলাইন করে নিতে পারবেন খুব সহজে।

আরোও পড়ুন: বড়দের জন্ম নিবন্ধন করতে কি কি লাগে।

খুব বেশি ডকুমেন্ট প্রয়োজন হবে না শুধুমাত্র যাচাই এর জন্য আপনি একটু ডকুমেন্ট সাবমিট করতে পারেন। যেকোনো ধরনের ডকুমেন্ট জন্ম নিবন্ধন বাংলা থেকে ইংরেজি করার জন্য সাবমিট করতে পারেন। সেটি যদি সঠিক থাকে তাহলে অল্প দিনের মধ্যে আপনার জন্ম নিবন্ধন ইংরেজি রূপান্তর হবে।

এই আর্টিকেল থেকে আমরা বিস্তারিত জানার চেষ্টা করব এবং আপনি যদি আপনার জন্ম সনদ বাংলায় পাশাপাশি ইংরেজি ও করতে চান এক্ষেত্রে এই আর্টিকেলটি আপনার জন্য সর্বোচ্চ গুরুত্বপূর্ণ।

তাহলে চলুন আমরা দেখিনি কিভাবে জন্ম নিবন্ধন সনদ বাংলা থেকে ইংরেজি করতে হয়। আরো তথ্য যেগুলো আমরা এই আর্টিকেল এর মধ্য থেকে জানার চেষ্টা করব। আশা করি আপনি ঘরে বসে জন্ম সনদ বাংলা থেকে ইংরেজি করতে পারবেন।

জন্ম নিবন্ধন অনলাইন বাংলা ও ইংরেজি যাচাই।

প্রথমে আমরা দেখে নিব কি কি পরিবর্তন হতে পারে এই কাজগুলো করার মাধ্যমে। অর্থাৎ আপনার জন্ম সনদ কি কি পরিবর্তন হবে যদি আপনি জনসনদ বাংলা থেকে ইংরেজি করতে চান।

প্রথমে আপনি এই স্ক্রিনশটটি লক্ষ্য করে দেখুন তাহলে দেখতে পারবেন এখানে চেয়ে সকল তথ্য দেওয়া রয়েছে সকল তথ্য বাংলাতে লেখা রয়েছে।

জন্ম নিবন্ধন অনলাইন ইংরেজি যাচাই।
জন্ম নিবন্ধন অনলাইন ইংরেজি যাচাই।

কোন প্রকার ইংরেজি তথ্য এখানে দেওয়া হয়নি নাম পিতা মাতার নাম ইত্যাদি বাংলাতে দেওয়া রয়েছে। আপনি চাইলে পাশে কিন্তু ইংরেজিতেও আপনার সকল নাম ঠিকানা পিতা মাতার নাম ইত্যাদি আবেদন করে পরবর্তী সময় দেখাতে পারবেন।

এক্ষেত্রে আপনার আরো ভালো হবে কেননা বাংলার পাশাপাশি আপনার জন্ম সনদ ইংরেজিতেও দেখা যাবে। এবং সেটি আপনি যেকোনো কাজে আরও সহজ ভাবে ব্যবহার করতে পারবেন।

জন্ম নিবন্ধন ইংরেজি অনলাইন আবেদন।

এখন আমরা দেখে নেব বিস্তারিত জন্ম নিবন্ধন ইংরেজি অনলাইন আবেদন কিভাবে আপনি করবেন। এর জন্য প্রয়োজন আমাদের একটি মোবাইল ফোন অথবা কম্পিউটার যেখান থেকে আমরা ইন্টারনেট কানেকশন সংশোধন করে ওয়েবসাইটে প্রবেশ করে এই কাজ গুলি করতে পারবো।

প্রথমে চলে যেতে হবে বাংলাদেশ জন্ম নিবন্ধন ওয়েবসাইটে https://bdris.gov.bd এই ওয়েবসাইটে প্রবেশ করার পর চলে যাবেন জন্ম নিবন্ধন তথ্য সংশোধন এরপর এখানে জন্ম সনদ সাবমিট করে বাংলা থেকে ইংরেজি করা যাবে।

আরো পড়ুন: অনলাইন জন্ম নিবন্ধন যাচাই |

উপরে থাকা লিংকে প্রবেশ করার পর আপনার জন্ম নিবন্ধন কি সঠিকভাবে যুক্ত করবেন এবং এরপর যে সমস্ত কাজ করতে হবে তা আমরা স্ক্রিনশট থেকে জানার চেষ্টা করব।

যেহেতু আমরা আমাদের জন্য নিবন্ধন বাংলার পাশাপাশি ইংরেজি করব এর জন্য অবশ্যই আমাদের আগের জন্ম নিবন্ধন লগইন করে নিতে হবে এবং তার পরবর্তী সময়ে কিন্তু আমরা জন্ম সনদ বাংলা থেকে ইংরেজি রূপান্তর করতে পারব।

এখান থেকে আমার একটা সকল ধরনের তথ্য নতুন করে সাবমিট করতে হবে এবং যে বিষয়গুলি আমরা দেখব তা স্ক্রিনশটে উল্লেখ করে দেওয়া হয়েছে আপনি এরকম ভাবে আপনার জন্ম সনদ করার পরবর্তী সময় তথ্যগুলি পুনরায় সাবমিট করবেন।

সংশোধন তথ্য নির্বাচন এই অপশনের নিচে দেখতে পারবেন বিষয় নামের আরো একটি অপশন রয়েছে সেখান থেকে আপনি বিষয়গুলো সিলেক্ট করবেন।

অর্থাৎ যে সমস্ত নামের শেষে ইংরেজি লেখা রয়েছে আপনি সম্পূর্ণ অপশন ব্যবহার করবেন আপনার জন্য সনদটি বাংলা ও ইংরেজি করার জন্য।

দেখতে পাচ্ছেন স্ক্রিনশটে বিষয়ের জায়গায় নাম এবং পরবর্তী ঘরে আছে যে নামটি ব্যবহার করতে চাচ্ছেন ইংরেজিতে তা দেওয়া রয়েছে। শেষের অংশ দিবেন “ভুল লিপিবদ্ধ করা হয়েছিল” এভাবে যতগুলি অপশন রয়েছে নতুন করে সবগুলো অপশন পূরণ করবেন এখানে।

এর সর্বশেষ আপনার এখানে বিশেষ কিছু কাজ করে নিতে হবে তার মধ্যে অন্যতম হলো আপনার একটি মোবাইল নাম্বার প্রয়োজন হবে যা অবশ্যই আপনাকে এখানে প্রদান করতে হবে। এই নাম্বারে কোন প্রকার ওটিপি কোড আসবে না।

এবং একটি সার্টিফিকেট বা ডকুমেন্ট আপনাকে এখানে আপলোড করতে হবে জন্ম সনদ বাংলা থেকে ইংরেজি করার জন্য আপনি যেকোনো ধরনের সার্টিফিকেট বা ডকুমেন্ট এখানে আপলোড করতে পারেন যেমন: ভোটার আইডি কার্ড, ড্রাইভিং লাইসেন্স, এসএসসি সনদ , পিএসসি সনদ , ইত্যাদি।

যেকোনো একটি সনদ এখান থেকে আপনি আপলোড করে দেবেন এবং সর্বশেষ দেখতে পারবেন আপনাকে এখানে টাকা পরিশোধ করতে বলবে সেখান থেকে আপনি দিয়ে দিবেন Pay in cash এবং পরবর্তী অপশনে ক্লিক করবেন।

এর পরবর্তী সময় দেখতে পারবেন এরকম একটি ছবি আপনার সামনে প্রদর্শন করতেছে এখান থেকে আপনাকে আরো কিছু কাজ করে নিতে হবে।

প্রথমে এখান থেকে আপনি আবেদন পত্র প্রিন্ট অপশনে ক্লিক করে এই জন্ম নিবন্ধন ইংরেজি ফরমেট pdf আপনার মোবাইল ফোন বা ডিভাইসে সংরক্ষণ করে নিবেন। এবং পরবর্তী সময়ে এটি আবার যে কোন একটি কম্পিউটারে দোকানের মাধ্যমে হতে ফটোকপি করে আবেদন পত্রটি সংরক্ষণ করবেন।

এছাড়াও স্ক্রিনশটে বা ছবিতে দেখা যাচ্ছে একটি নাম্বার রয়েছে জন্ম নিবন্ধন আবেদন পত্র নাম্বার নামে লেখা দেখা যাচ্ছে আপনি এই নাম্বারটি অবশ্যই মনে রাখবেন দরকার হলে একটি স্ক্রিনশট মোবাইল ফোনে সংরক্ষণ করে রাখবেন যেন পরবর্তী সময়ে এই নাম্বারটি ভুলে না যান।

জন্ম নিবন্ধন ইংরেজি করতে কত দিন লাগে।

সকল তথ্য সঠিকভাবে সাবমিট করলে এবং জন্ম নিবন্ধন আবেদন পত্র প্রিন্ট সহ আপনি যে ডকুমেন্ট এখানে আপলোড করেছিলেন অর্থাৎ ভোটার আইডি কার্ড ড্রাইভিং লাইসেন্স বা অন্যান্য সনদ যেটি আপলোড করে থাকেন না কেন সেই সনদ এর আরো একটি ফটোকপি সংরক্ষণ করবেন।

এবং পরবর্তী সময়ে এই দুটি ডকুমেন্টের সাথে আপনার ইউনিয়ন কাউন্সিলার এর সাথে যোগাযোগ করে আবেদনপত্র ও ডকুমেন্ট তাদের কাছে জমা করবেন।

সবকিছু ঠিকঠাক ভাবে থাকে তাহলে জন্ম নিবন্ধন ইংরেজি করতে ১৫ থেকে ২০ দিন সময় লাগতে পারে এবং অবশ্যই মোবাইল নাম্বারটি এখানে গুরুত্বপূর্ণ কেননা পরবর্তী সময় আপনাকে কল এর মাধ্যমে জানিয়ে দেওয়া হতে পারে।

অবশ্য সকল ডকুমেন্ট সঠিকভাবে করলে আপনি ১৫ থেকে ২০ দিন পর আপনার ইউনিয়ন পরিষদ বা ইউনিয়ন কাউন্সিলর এর সাথে যোগাযোগ করলে আপনার জন্ম নিবন্ধন সম্পর্কে তথ্য জানা যাবে।

এবং এই পরবর্তী সময়ে আপনি চাইলে অনলাইনে আবার আপনার জন্য ইংরেজি যাচাই করতে পারবেন যা আমরা উপর দেখেছিলাম স্ক্রিনশটের মাধ্যমে। একইভাবে আপনি সেই ওয়েবসাইটে প্রবেশ করে আবার পুনরায় যাচাই করলে দেখতে পারবেন আপনার জন্ম সনদ বাংলার পাশাপাশি ইংরেজিতেও পাওয়া যাচ্ছে অনলাইনে।

জন্ম নিবন্ধন ইংরেজি করতে কত টাকা লাগে।

এই সমস্ত উপকরণ জমা দেওয়ার সময় আপনাকে ১০০ টাকা ফি প্রদান করতে হবে অর্থাৎ জন্ম নিবন্ধন ইংরেজি করতে আপনার সময়মত ১০০ টাকা ফি প্রদান করতে হবে। এবং এটি আপনি অনলাইনের মাধ্যমে অথবা সরাসরি ক্যাশ প্রদান করতে পারবেন।

যখন আপনার ডকুমেন্টগুলি পরিষদের জমা করবেন সেই মুহূর্তে আপনাকে একটি ফি প্রদান করতে হবে। অথবা চাইলে আপনি এতই ভাবে অনলাইনের মাধ্যমে ফি প্রদান করতে পারবেন।

তবে আপনি যদি অন্য কারো মাধ্যমে এই কাজগুলি করার চেষ্টা করে এক্ষেত্রে আপনার অনেক বেশি কষ্ট খরচ হবে বলে মনে করি আমি। এই পদ্ধতি অবলম্বন করে আপনি ঘরে বসেই কিন্তু আপনার জন্য বাংলার পাশাপাশি ইংরেজি পড়তে পারবেন সহজেই।

এবং কোন ভুল ত্রুটি হলে অবশ্যই কমেন্টের মাধ্যমে সেই ভুলটি শেয়ার করবেন আমার চেষ্টা করব আপনার ভুলের সমস্যার সমাধান দ্রুত শেয়ার করার জন্য। সবাই ভালো থাকবেন সুস্থ থাকবেন ধন্যবাদ।

Leave a Comment

x