ডায়াবেটিস কত হলে মানুষ মারা যায়

হ্যালো বন্ধুরা, কেমন আছেন সবাই? আশা করি সকলেই খুব ভালো আছেন। আপনারা অনেকেই ডায়াবেটিস কত হলে মানুষ মারা যায় সম্পর্কে জানতে চেয়েছেন। আজকে আমি আপনাদেরকে ডায়াবেটিস কত হলে মানুষ মারা যায় সম্পর্কে বলবো। তো চলুন শুরু করা যাক।

আজকের বিষয় সমুহ।

ডায়াবেটিস কত হলে মানুষ মারা যায়

মানবদেহে, ডায়াবেটিস 40 mg/dl-এর কম বা 400 mg/dl-এর বেশি হলে, রোগী যে কোনও সময় স্ট্রোকে মারা যেতে পারে। অনিয়ন্ত্রিত ডায়াবেটিস কিডনি, হার্ট এবং স্নায়ু সহ শরীরের যে কোনও অঙ্গের ক্ষতি করতে পারে। ফলে ডায়াবেটিস রোগীর মৃত্যু হতে পারে। ফলস্বরূপ, এটি আবিষ্কৃত হয়েছিল যে ডায়াবেটিস খুব কম বা খুব বেশি হলে এটি অপ্রত্যাশিত মৃত্যু হতে পারে। ফলস্বরূপ, পয়েন্টের সঠিক সংখ্যার উপর ভিত্তি করে কে মারা যাবে তা অনুমান করা অসম্ভব।

ভরা পেটে ডায়াবেটিস কত হলে নরমাল

ভরা পেটে রক্তে শর্করার স্বাভাবিক মাত্রা নির্ভর করে বয়স, ডায়াবেটিসের ধরণ এবং অন্যান্য কারণের উপর।

মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের ডায়াবেটিস অ্যাসোসিয়েশনের (ADA) মতে, সুস্থ প্রাপ্তবয়স্কদের জন্য ভরা পেটে রক্তে শর্করার স্বাভাবিক মাত্রা হল:

  • খাবার খাওয়ার ২ ঘন্টা পর: ১৪০ মিলিগ্রাম/ডেসিলিটার (mg/dL) এর কম
  • সকালে খালি পেটে: ১০০ mg/dL এর কম

তবে, ডায়াবেটিস রোগীদের জন্য লক্ষ্য রক্তে শর্করার মাত্রা ভিন্ন হতে পারে:

  • টাইপ ১ ডায়াবেটিস রোগীদের জন্য:
    • খাবার খাওয়ার ২ ঘন্টা পর: ১০০-১৩০ mg/dL
    • সকালে খালি পেটে: ৭০-১৩০ mg/dL
  • টাইপ ২ ডায়াবেটিস রোগীদের জন্য:
    • খাবার খাওয়ার ২ ঘন্টা পর: ১৪০ mg/dL এর কম
    • সকালে খালি পেটে: ১০০ mg/dL এর কম

গর্ভবতী মহিলাদের জন্য রক্তে শর্করার লক্ষ্যমাত্রাও আলাদা।

ডায়াবেটিস কত হলে ইনসুলিন নিতে হয়

ডায়াবেটিস কত হলে ইনসুলিন নিতে হবে তা নির্ধারণ করা একজন ডাক্তারের জন্যই সবচেয়ে ভালো। কারণ, একজন ব্যক্তির ইনসুলিনের প্রয়োজনীয়তা নির্ভর করে বিভিন্ন বিষয়ের উপর, যেমন:

  • ডায়াবেটিসের ধরণ: টাইপ ১ ডায়াবেটিসে আক্রান্ত সকলেরই ইনসুলিন প্রয়োজন হয়, কারণ তাদের শরীর ইনসুলিন তৈরি করে না। টাইপ ২ ডায়াবেটিসে আক্রান্ত কিছু লোকের ওষুধের মাধ্যমে রক্তে শর্করার মাত্রা নিয়ন্ত্রণ করা সম্ভব, কিন্তু অন্যদের ইনসুলিনের প্রয়োজন হতে পারে।
  • রক্তে শর্করার মাত্রা: রক্তে শর্করার মাত্রা যদি নিয়মিতভাবে লক্ষ্যমাত্রার চেয়ে বেশি থাকে, তাহলে ইনসুলিন প্রয়োজন হতে পারে।
  • অন্যান্য স্বাস্থ্য সমস্যা: কিডনি রোগ, হৃদরোগ বা স্নায়বিক সমস্যা থাকলে ইনসুলিন প্রয়োজন হতে পারে।
  • বয়স: বয়স বাড়ার সাথে সাথে শরীরের ইনসুলিন তৈরির ক্ষমতা কমে যেতে পারে, ফলে ইনসুলিন প্রয়োজন হতে পারে।
  • জীবনধারা: খাদ্যাভ্যাস ও ব্যায়ামের অভ্যাস ইনসুলিনের প্রয়োজনীয়তাকে প্রভাবিত করতে পারে।

আপনার ডাক্তার আপনার রক্তে শর্করার মাত্রা পরীক্ষা করে, ডায়াবেটিসের ধরণ ও অন্যান্য স্বাস্থ্য সমস্যা বিবেচনা করে, এবং আপনার জীবনধারার উপর ভিত্তি করে কতটা ইনসুলিন প্রয়োজন তা নির্ধারণ করবেন।

কিছু লক্ষণ যা ইঙ্গিত দেয় যে আপনার ইনসুলিন প্রয়োজন হতে পারে:

  • রক্তে শর্করার মাত্রা বারবার বেশি থাকা
  • খুব বেশি পিপাসা পাওয়া
  • বারবার প্রস্রাব হওয়া
  • অস্বাভাবিকভাবে ক্লান্তি বোধ করা
  • ওজন কমে যাওয়া
  • ধূসর দৃষ্টি
  • শুষ্ক ত্বক
  • বারবার ঘা হওয়া ও দীর্ঘস্থায়ী হওয়া

ডায়াবেটিস কত হলে ঔষধ খেতে হবে

ডায়াবেটিস কত হলে ঔষধ খেতে হবে তা নির্ধারণ করা একজন ডাক্তারের জন্যই সবচেয়ে ভালো। কারণ, একজন ব্যক্তির ঔষধের প্রয়োজনীয়তা নির্ভর করে বিভিন্ন বিষয়ের উপর, যেমন:

  • ডায়াবেটিসের ধরণ: টাইপ ১ ডায়াবেটিসে আক্রান্ত সকলেরই ঔষধ প্রয়োজন হয়, কারণ তাদের শরীর ইনসুলিন তৈরি করে না। টাইপ ২ ডায়াবেটিসে আক্রান্ত কিছু লোকের খাদ্যাভ্যাস ও ব্যায়ামের মাধ্যমে রক্তে শর্করার মাত্রা নিয়ন্ত্রণ করা সম্ভব, কিন্তু অন্যদের ঔষধের প্রয়োজন হতে পারে।
  • রক্তে শর্করার মাত্রা: রক্তে শর্করার মাত্রা যদি নিয়মিতভাবে লক্ষ্যমাত্রার চেয়ে বেশি থাকে, তাহলে ঔষধ প্রয়োজন হতে পারে।
  • অন্যান্য স্বাস্থ্য সমস্যা: কিডনি রোগ, হৃদরোগ বা স্নায়বিক সমস্যা থাকলে ঔষধ প্রয়োজন হতে পারে।
  • বয়স: বয়স বাড়ার সাথে সাথে শরীরের ইনসুলিন তৈরির ক্ষমতা কমে যেতে পারে, ফলে ঔষধ প্রয়োজন হতে পারে।
  • জীবনধারা: খাদ্যাভ্যাস ও ব্যায়ামের অভ্যাস ঔষধের প্রয়োজনীয়তাকে প্রভাবিত করতে পারে।

আপনার ডাক্তার আপনার রক্তে শর্করার মাত্রা পরীক্ষা করে, ডায়াবেটিসের ধরণ ও অন্যান্য স্বাস্থ্য সমস্যা বিবেচনা করে, এবং আপনার জীবনধারার উপর ভিত্তি করে কতটা ঔষধ প্রয়োজন তা নির্ধারণ করবেন।

কিছু লক্ষণ যা ইঙ্গিত দেয় যে আপনার ঔষধ প্রয়োজন হতে পারে:

  • রক্তে শর্করার মাত্রা বারবার বেশি থাকা
  • খুব বেশি পিপাসা পাওয়া
  • বারবার প্রস্রাব হওয়া
  • অস্বাভাবিকভাবে ক্লান্তি বোধ করা
  • ওজন কমে যাওয়া
  • ধূসর দৃষ্টি
  • শুষ্ক ত্বক
  • বারবার ঘা হওয়া ও দীর্ঘস্থায়ী হওয়া

আপনার যদি এই লক্ষণগুলির মধ্যে কোনটি দেখা দেয়, তাহলে দ্রুত আপনার ডাক্তারের সাথে যোগাযোগ করুন।

সুগার লেভেল কত হলে ডায়াবেটিস

সুগার লেভেল কত হলে ডায়াবেটিস হয় তা নির্ধারণ করা একটু জটিল, কারণ এটি বিভিন্ন কারণের উপর নির্ভর করে।

সাধারণত:

  • খাওয়ার আগে রক্তে শর্করার মাত্রা 70-130 মিলিগ্রাম প্রতি ডেলিলিটার (mg/dL) এর মধ্যে থাকা উচিত।
  • খাওয়ার পরে রক্তে শর্করার মাত্রা 90-150 mg/dL এর মধ্যে থাকা উচিত।

ডায়াবেটিস রোগীদের জন্য রক্তে শর্করার লক্ষ্যমাত্রা সাধারণত:

  • খাওয়ার আগে 80-130 mg/dL
  • খাওয়ার পরে 90-150 mg/dL

তবে, আপনার জন্য সঠিক রক্তে শর্করার লক্ষ্যমাত্রা আপনার ডাক্তার নির্ধারণ করবেন।

পরিশেষে

আমি আশা করছি আপনারা আপনাদের ডায়াবেটিস কত হলে মানুষ মারা যায় এই প্রশ্নের উওর পেয়েছেন। আরো কিছু জানার থাকলে নিচে কমেন্ট করুন। ধন্যবাদ।

আরো পড়ুনঃ বাচ্চাদের বমির ঔষধের নাম

Visited 29 times, 1 visit(s) today

Leave a Comment

x